করোনাভাইরাস আজ সারা বিশ্বে মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ছে। লক্ষ লক্ষ মানুষ আজ এই ভাইরাসে আক্রান্ত এবং হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছে। কিন্তু কেন এই মহামারী? কেন এই ভাইরাস এভাবে মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ছে সারা বিশ্বে তা কি আমরা জানি?

আমি বিখ্যাত একটি ব্র্যান্ড এর গান [Darker Than Blood] পর্যালোচনা করেছি যেটা ২০১৫ সালে ইউটিউব এ রিলিজ হয়। আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে এই গানটি যেভাবে বা যে প্রেক্ষাপটে দেখানো হয়েছে, যা বর্তমান করোনা ভাইরাসের প্রেক্ষাপট এর সাথে হুবুহু মিলে যাচ্ছে। এটা কি একটা কোইন্সিডেন্স? নাকি এটা কোনো গ্রূপ এর সিক্রেট প্ল্যান যা এখন বাস্তবায়িত হচ্ছে?

আসুন দেখে নেয়া যাক কি আছে এই গানে

গানের শুরুতেই দেখানো হচ্ছে যে বিলিয়ন মানুষ এই ভাইরাসের দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে, এবং সাল দেখানো হচ্ছে ২০৫২। এবং এই সময় চারদিকে দাঙ্গা, বিশৃঙ্খলা, আক্রান্ত রোগীকে ভালো করার জন্য ডাক্তারদের প্রচেষ্টা, মানুষের উপর পুলিশের নির্যাতন সবই দেখানো হচ্ছে শুরুতে। সংক্ষেপে, এ থেকে বোঝা যায় যে সারা বিশ্বে তখন কি বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরী হবে যেটা এখন ধীরে ধীরে হচ্ছে করোনা ভাইরাসের প্রভাবে।

ছবি: বিলিয়ন মানুষ এই ভাইরাসের দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে, এবং সাল দেখানো হচ্ছে ২০৫২

নিচের হেডলাইনে দেখানো হচ্ছে পৃথিবী ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে কেননা অর্থনীতি ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে, ভাইরাসের প্রতিষেধক এখনো আবিষ্কৃত হয়নি। আজ করোনো ভাইরাসের প্রভাবে সারা পৃথিবী এক প্রকার আইসোলেটেড, মানুষ চাকরি হারাচ্ছে এবং পৃথিবীতে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরী হচ্ছে। আরো খেয়াল করলে দেখবেন লেখা আছে “New York is Below Water” তার মানে কি ভবিষ্যতে পৃথিবীর এই বিখ্যাত সিটিকে ধ্বংস করে দেয়া হবে?

ছবি: নিউ ইয়র্ক শহর ধ্বংস হবে দেখানো হচ্ছে

এর পরবর্তী দৃশ্যে একটি বাচ্চা মেয়ে যাকে দেখলে চাইনিজ শিশুদের মতো লাগছে তাকে দেখানো হয় যে কিনা এই ভাইরাসে আক্রান্ত। এবং অনেক মানুষ তাকে ধরার জন্য চেষ্টা করছে।  আমরা জানি যে করোনা ভাইরাস চীন থেকে শুরু হয়েছিল এবং সারা পৃথিবীর মানুষ এখন এই ভাইরাসের জন্য তাদেরকে দোষ দিচ্ছে।

এর কিছুক্ষন পর দেখা যায়, ওই বাচ্চা শিশুটিকে অপারেশন থিয়েটারে নেয়া হয়েছে এবং তাকে ভ্যাকসিন দেয়া হচ্ছে। এবং আশ্চর্জনক ভাবে এই শিশুটি সুস্থ হয়ে যায়। আমরা ইতিমধ্যে জানি যে এই ভাইরাস চীন থেকে চলে গেছে তাদের দাবি অনুযায়ী।

ছবি: আক্রান্ত চাইনিজ মেয়ে

কিন্তু অবাক করা বিষয় এই যে, এখানে ভাইরাসের যে আকৃতি দেখানো হচ্ছে তা হুবুহু করোনা ভাইরাসের সাথে মিলে যাচ্ছে!!!  এতো মিল?

ছবি: ভিডিওতে দেখানো ভাইরাস

এর পরবর্তী দৃশ্যে দেখানো সারা পৃথিবীতে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে এবং মানুষদের কে এই ভ্যাকসিন দিয়ে সুস্থ করে তোলা হচ্ছে। 

ছবি: আক্রান্ত বিশ্ব

আপনারা এতক্ষনে নিশ্চই বুঝে গেছেন যে এই গানে একটি ভাইরাস নিয়ে দেখানো হয়েছে এবং আশ্চর্জনক ভাবে করোনা ভাইরাস এর সাথে সেসব মিলে যাচ্ছে। তাহলে কি এই সমস্ত কিছু পূর্ব পরিকল্পিত একটি নির্দিষ্ট কোনো গোষ্ঠী দ্বারা হচ্ছে?

আপনারা অনেকেই Illuminati এবং Freemason গোষ্ঠীর নাম শুনেছেন যারা পৃথিবীতে তাদের এজেন্ডা “One World Order” বাস্তবায়ন এবং দাজ্জাল আসার সমস্ত প্রেক্ষাপট বাস্তবায়ন করার জন্য কাজ করে যাচ্ছে।

ভিডিও :

আমাদেরকে এখনই  সতর্ক হতে হবে এবং আল্লাহ পাকের কাছে পানাহ চাইতে হবে, সাহায্য চাইতে হবে। যাতে আল্লাহ পাক এই সমস্ত ফিতনা থেকে আমাদেরকে হেফাজত করেন। 

পরিশেষে আমরা এই ভিডিওতে যা দেখেছি এবং পর্যালোচনা করেছি সবই অনুমান নির্ভর। সবকিছু আল্লাহ তা’য়ালাই ভালো জানেন। 

“তারা পরিকল্পনা করে, আল্লাহও পরিকল্পনা করেন। বস্তুতঃ আল্লাহর পরিকল্পনাই সবচেয়ে উত্তম।” [ আল -আনফালঃ ৩০]

এই নিবন্ধে প্রকাশিত মতামত লেখকের একান্তই নিজস্ব

লেখক: আবু শাহাদাত মোহাম্মদ সায়েম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *